বিদেশে চিকিৎসা

হেলথপ্ল্যানের মাধ্যমে বিদেশে চিকিৎসা সেবা

বিদেশে চিকিৎসা গ্রহন এখন একদম সহজ! শুধু আপনার ডায়াগনোসিস এর রিপোর্ট  নিয়ে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন, এরপর পাসপোর্ট এপ্লিকেশন,  হাসপাতাল বুকিং, ডাক্তার সিলেকশন ও এপোয়েন্টমেন্ট, ভিসা প্রসেসিং এবং সবশেষে চিকিৎসা গ্রহন করে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরা,পুরো প্রসেসেই আমরা থাকবো আপনার পাশে!

২ বছর ধরে বিদেশে ট্রিটমেন্ট নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে হেলথপ্ল্যান বাংলাদেশ (সংক্ষেপে হেলথপ্ল্যান বিডি.). ইন্ডিয়া, নেপাল, সিংগাপুর, মালয়েশিয়া ও থাইল্যান্ডের বিশ্বসেরা সব হাসপাতালে যেকোনো রোগের যেকোনো ট্রিটমেন্টে বাংলাদেশে চিকিৎসাসেবায় অভিজ্ঞতাসম্পন্ন প্রতিষ্ঠান আমরা। আমরা জানি একজন পেশেন্ট ও পেশেন্টের পরিবার কি চায়, রোগীর রোগ ও বাজেট অনুযায়ী তার কোন দেশে, কোন হাসপাতালে কোন ডাক্তারের কাছে চিকিৎসা নেওয়া প্রয়োজন, সে অনুযায়ী প্রত্যেক পেশেন্টের সমস্যা এনালাইসিস করে তাকে কম খরচে আন্তর্জাতিক মানের সেবা দেওয়াটাই আমাদের মুল লক্ষ্য!

হেলথপ্ল্যান বিডি’র বিদেশে চিকিৎসা সংক্রান্ত সেবাসমূহঃ 

১. পাসপোর্ট সংক্রান্ত সহায়তাঃ বিদেশে চিকিৎসা নিতে হলে প্রথমেই আমাদের দরকার পাসপোর্ট, আমরা সঠিকভাবে ই পাসপোর্ট দক্ষ টিমের মাধ্যমে দ্রুত পাইয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করে থাকি।

২. সঠিক দেশ,  হাসপাতাল এবং চিকিৎসা বেছে নিতে সহায়তা: রোগ অনুযায়ী সঠিক দেশ,   সঠিক হাসপাতাল এবং চিকিৎসা বেছে নেওয়া বাংলাদেশী রোগী ও স্বজনদের একটি কঠিন ব্যাপার। এক্ষেত্রে আমরা রোগীদের তাদের বিশেষ স্বাস্থ্যের অবস্থার জন্য সেরা হাসপাতাল এবং ডাক্তার সম্পর্কে তথ্য প্রদান করে এই প্রক্রিয়াটি সহজ করি তুলি । এটি রোগীদের সিদ্ধান্ত নিতে সহায়তা করে। 

৩. ভিসা এপ্লিকেশনঃ দেশ ও হাসপাতাল নির্বাচনের পর আমরা দ্রুতগতিতে ভিসা প্রসেসিং এর কাজ সম্পন্ন করে থাকি যাতে করে রোগী বিদেশে দ্রুতসময়ের মধ্যে চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে পারে।

৪ ভ্রমণ, হোটেল বুকিং বা থাকার ব্যবস্থা: আমরা চিকিৎসার জন্য ভ্রমণকারী রোগীদের ভ্রমণ সংক্রান্ত তথ্য সকল প্রকার সেবা এবং তথ্য দিয়ে সহায়তা করে থাকি। এবং হোটেল বুকিং বা বাসস্থান সহ সমস্ত লজিস্টিক ব্যবস্থা করে থাকি। রোগীর বাজেট এবং পছন্দের ভিত্তিতে ট্রেনের টিকেট,  ফ্লাইট, মেডিকেল ভিসা এবং হোটেলে থাকার ব্যবস্থা করে দিয়ে থাকি।

৫. হাসপাতাল এবং ডাক্তারদের সাথে যোগাযোগ: রোগীদের সাথে হাসপাতালের মধ্যে মধ্যস্থতাকারী হিসাবে কাজ করে থাকি।

৬. ভাষা এবং সাংস্কৃতিক সহায়তা: বাংলাদেশী রোগীদের চিকিৎসার সময় ভাষা ও সাংস্কৃতিক বাধা অতিক্রম করতে সাহায্য করে থাকি। রোগীকে ডাক্তার ও নার্সদের সাথে যোগাযোগ করতে এবং রোগীর মুখোমুখি হতে পারে এমন সাংস্কৃতিক পার্থক্য পরিচালনা করতে সহায়তা করার জন্য দোভাষী বা অনুবাদক সরবরাহ করে থাকি। 

৭. চিকিৎসার পরে ফলোআপ: রোগীদের দেশে ফেরার পর ফলো-আপের ব্যবস্থা করা হয়, যাতে পরবর্তীতে কোন সমস্যা হলে তা দ্রুত ডাক্তারের সহায়তা নিয়ে রিকোভার করা যায়।  

আমাদের সেবা কেন নিবেন?

১. ব্যক্তিগত পরিষেবা:  আমরা  রোগীদের তাদের ব্যক্তিগত চাহিদা এবং পছন্দের ভিত্তিতে ব্যক্তিগতকৃত পরিষেবা প্রদান করে থাকি। সমস্ত সরবরাহ ব্যবস্থার যত্ন নেয় যাতে রোগীরা তাদের চিকিৎসা  এবং রিকোভারির দিকে পুর্ণাঙ্গ মনোনিবেশ করতে পারেন। 

২. খরচ বাচান: আমরা সেবার দাম কমানোর জন্য হাসপাতাল এবং ডাক্তারদের সাথে আলোচনা করে রোগীদের চিকিৎসা খরচ বাঁচাতে সাহায্য করি। এটি রোগীদের হিডেন এবং অপ্রত্যাশিত খরচ এড়াতে সাহায্য করে যা বিদেশে চিকিৎসার সময় হতে পারে।

৩. গুণগত সেবা নিশ্চিত:  আমরা সবসময় নিশ্চিত করি, যেন রোগীরা মানসম্পন্ন সেবা ও যত্ন পান এবং তাদের অভিজ্ঞতা আপ টু দ্যা মার্ক হয়। 

৪. মানষিক শান্তি ও চিত্ত বিনোদন: আমরা  রোগীদের মানসিক শান্তি, এবং চিত্ত বিনোদনের জন্য যে সমস্ত লজিস্টিক ব্যবস্থা  প্রয়োজন  তার ব্যবস্থা করে থাকি এবং রোগীরা পরিবহন বা বাসস্থানের বিষয়ে চিন্তা না করেই চিকিৎসা এবং রোগ থেকে দ্রুত রেকোভারির দিকে মনোনিবেশ করতে পারেন

সর্বপরি আপনি যদি নিয়ত করে থাকেন বিদেশে চিকিৎসা নিবেন, তাহলে এখনি আপনার ডায়াগণস্টিক রিপোর্টগুলো আমাদের ইমেইল healthplanbd@gmail.com অথবা হোয়াটসঅ্যাপ +8801317-823580 নাম্বারে দ্রুতগতিতে পাঠিয়ে আমরা বিনামুল্যে আপনাকে একটি কোটেশন দিব যা আপনার বিদেশে চিকিৎসা নেওয়ার প্রথম ধাপ হিসেবে আপনাকে পর্যাপ্ত সহায়তা করবে।

আপনার মতামত দিন!